ঢাকা ১২:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

সামনে কঠিন সময় ভাবাচ্ছে বিএনপি কে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৮:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৩৬ বার পড়া হয়েছে

আসন্ন নির্বাচন, আন্তর্জাতিক চাপ, দাবি আদায়ে সরকারকে বাধ্য করা ও রাজপথে বিএনপির সক্রিয়তার মতো বিষয়গুলো তুলে ধরে প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।

এছাড়াও জামায়াতের সঙ্গে দলটির সম্পর্কের টানাপড়েন নিয়ে খবরে বলা হয়েছে, দেশের মানুষ এবং বিদেশিদের আস্থায় নিতে জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে বিএনপি দূরত্ব বজায় রাখলেও সন্দেহ রয়ে গেছে এখনও।

অন্য সমমনা দলগুলো নিয়ে রাজপথে যুগপৎ আন্দোলনে বড় ধরনের সভা-সমাবেশ হলেও এখনও সরকারের ওপর তেমন চাপ তৈরি করতে পারেনি। এছাড়া হামলা-মামলা ও গ্রেপ্তার সামলাতেও নাকাল অবস্থা দলটির।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনের আগে দলটিকে সক্রিয় করতে আরও ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত হতে হবে। পাশাপাশি অনুমতি নিয়ে সভা-সমাবেশ করা দাবি আদায় সম্ভব না উল্লেখ করে আন্দোলনের সঙ্গে জনগণের সম্পৃক্ততার বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং আওয়ামী লীগের আসন্ন কর্মসূচি ।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর খবরে দল গঠনের পটভূমি তুলে ধরার পাশাপশি বর্তমান সময়ের চ্যালেঞ্জ তুলে ধরা হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, ২০০৭ সালে সেনাসমর্থিত এক-এগারো সরকারের সময়ে দলটির ওপর যে মামলা, হামলা, জেল, জুলুম শুরু হয়েছিল তার ধারাবাহিকতা এখনো চলছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার সংখ্যা এখন এক লাখেরও বেশি।

দলটির তথ্য অনুযায়ী, এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে ৪০ লাখেরও বেশি। ২০০৯ সালের জানুয়ারি মাস থেকে বর্তমান পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার মানুষ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে। এদের বেশির ভাগই বিরোধী দলের নেতাকর্মী। এর বাইরে গুম হয়েছে পাঁচ শতাধিক।

অন্যদিকে জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ রাজধানীতে বড় ধরনের জনসমাগম ঘটাতে চাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রগতির চিত্র জনগণের কাছে তুলে ধরার পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা ও সরকারের জনপ্রিয়তার বিশেষ বার্তা দিতে চায় দলটি।

দলের নেতারা মনে করেন, মহাকাশে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সফল উৎক্ষেপণ, বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তীর্ণ, মেগা প্রকল্প স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু ও মেট্রোরেল চালু হয়েছে। ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীতে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, আর ২৮ অক্টোবর চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগিতর এসব চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে যেসব দুর্নীতি হয়েছে সেই দুর্নীতির চিত্রও মানুষের জানা দরকার। এ বিষয়টি সম্পর্কে জনগণ স্পষ্ট ধারণা পেলেই আগামী জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জনগণ তাদের সুচিন্তিত রায় প্রদান করতে সহজ হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সামনে কঠিন সময় ভাবাচ্ছে বিএনপি কে

আপডেট সময় : ০৬:১৮:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আসন্ন নির্বাচন, আন্তর্জাতিক চাপ, দাবি আদায়ে সরকারকে বাধ্য করা ও রাজপথে বিএনপির সক্রিয়তার মতো বিষয়গুলো তুলে ধরে প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।

এছাড়াও জামায়াতের সঙ্গে দলটির সম্পর্কের টানাপড়েন নিয়ে খবরে বলা হয়েছে, দেশের মানুষ এবং বিদেশিদের আস্থায় নিতে জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে বিএনপি দূরত্ব বজায় রাখলেও সন্দেহ রয়ে গেছে এখনও।

অন্য সমমনা দলগুলো নিয়ে রাজপথে যুগপৎ আন্দোলনে বড় ধরনের সভা-সমাবেশ হলেও এখনও সরকারের ওপর তেমন চাপ তৈরি করতে পারেনি। এছাড়া হামলা-মামলা ও গ্রেপ্তার সামলাতেও নাকাল অবস্থা দলটির।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনের আগে দলটিকে সক্রিয় করতে আরও ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত হতে হবে। পাশাপাশি অনুমতি নিয়ে সভা-সমাবেশ করা দাবি আদায় সম্ভব না উল্লেখ করে আন্দোলনের সঙ্গে জনগণের সম্পৃক্ততার বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং আওয়ামী লীগের আসন্ন কর্মসূচি ।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর খবরে দল গঠনের পটভূমি তুলে ধরার পাশাপশি বর্তমান সময়ের চ্যালেঞ্জ তুলে ধরা হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, ২০০৭ সালে সেনাসমর্থিত এক-এগারো সরকারের সময়ে দলটির ওপর যে মামলা, হামলা, জেল, জুলুম শুরু হয়েছিল তার ধারাবাহিকতা এখনো চলছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার সংখ্যা এখন এক লাখেরও বেশি।

দলটির তথ্য অনুযায়ী, এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে ৪০ লাখেরও বেশি। ২০০৯ সালের জানুয়ারি মাস থেকে বর্তমান পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার মানুষ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে। এদের বেশির ভাগই বিরোধী দলের নেতাকর্মী। এর বাইরে গুম হয়েছে পাঁচ শতাধিক।

অন্যদিকে জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ রাজধানীতে বড় ধরনের জনসমাগম ঘটাতে চাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রগতির চিত্র জনগণের কাছে তুলে ধরার পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা ও সরকারের জনপ্রিয়তার বিশেষ বার্তা দিতে চায় দলটি।

দলের নেতারা মনে করেন, মহাকাশে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সফল উৎক্ষেপণ, বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তীর্ণ, মেগা প্রকল্প স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু ও মেট্রোরেল চালু হয়েছে। ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীতে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, আর ২৮ অক্টোবর চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগিতর এসব চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে যেসব দুর্নীতি হয়েছে সেই দুর্নীতির চিত্রও মানুষের জানা দরকার। এ বিষয়টি সম্পর্কে জনগণ স্পষ্ট ধারণা পেলেই আগামী জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জনগণ তাদের সুচিন্তিত রায় প্রদান করতে সহজ হবে।