ঢাকা ১১:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

সর্বজনীন পেনশনের টাকা করমুক্ত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১১:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আয় করমুক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে এই পেনশন স্কিমে দেওয়া চাঁদাকে বিনিয়োগ হিসেবে বিবেচনা করে কর রেয়াত মিলবে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বুধবার এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে। এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম এই প্রজ্ঞাপন সই করেন।

সরকার গত ১৭ আগস্ট সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করে। এই পেনশন স্কিমে চারটি স্কিম আছে। এগুলো হলো প্রবাস স্কিম, প্রগতি স্কিম, সুরক্ষা স্কিম এবং সমতা স্কিম।
এনবিআরের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, একজন পেনশন ভোগকারী প্রতি মাসে যখন পেনশনের টাকা তুলবেন, তা করমুক্ত থাকবে।

এ ছাড়া একজন করদাতা তার আয়ের একটি অংশ সরকার নির্ধারিত কিছু খাতে বিনিয়োগ করলে বছর শেষে কর রেয়াত পাওয়া যায়। যে পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করা হবে, তার ১৫ শতাংশ বা ১০ লাখ টাকার কম যে অর্থ হবে, সেই পরিমাণ অর্থ করছাড় পাওয়া যাবে। কিন্তু নতুন আইনের ষষ্ঠ তফসিলে সরকার নির্ধারিত খাতগুলোর মধ্যে পেনশন স্কিমের চাঁদার কথা উল্লেখ নেই। এখন সেখানে পেনশন স্কিমের চাঁদা অন্তর্ভুক্ত করা হলো।
বিনিয়োগের উল্লেখযোগ্য খাতগুলোর হলো সঞ্চয়পত্র, জীবনবিমার প্রিমিয়াম, প্রভিডেন্ট ফান্ডের চাঁদা, স্বীকৃত ভবিষ্য তহবিলের চাঁদা, সরকারি সিকিউরিটিজ বা মিউচুয়াল ফান্ডে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ, বছরে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা (মাসিক ১০ হাজার) ডিপিএস বিনিয়োগ ও শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ ইত্যাদি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ডিবির হারুন বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাং সদস্যদের সঙ্গে জড়িত ৩৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছৈ। তাদের গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওয়ারী ও গুলশান বিভাগ। গ্রেফতারদের মধ্যে বেশিরভাগ কিশোর গ্যাং সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রয়েছে। তিনি জানান, গ্রেফতাররা বাড্ডা, ভাটারা, তুরাগ, তিনশ ফিট ও যাত্রাবাড়ীসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় টার্গেট করা ব্যক্তিদের ইভটিজিং বা কোনো সময় ধাক্কা দেওয়ার ছলে উত্ত্যক্ত করত। এরপর তারা ঘেরাও করে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোবাইলফোন এবং নারীদের কাছ থেকে সোনার অলঙ্কার ছিনিয়ে নিত। এ ছাড়া তারা ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও চুরির সঙ্গে জড়িত। এসব গ্যাং সদস্য মাদক কারবারের সঙ্গেও জড়িত। ডিবি হারুন জানান, গ্রেফতার কিশোর গ্যাং সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদে কিছু কথিত বড় ভাইয়ের নাম পাওয়া গেছে। বড় ভাইদেরও গ্রেফতার করা হবে। কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিরুদ্ধে ডিবির প্রতিটি টিম কাজ করছে।

সর্বজনীন পেনশনের টাকা করমুক্ত

আপডেট সময় : ০৯:১১:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩

সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আয় করমুক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে এই পেনশন স্কিমে দেওয়া চাঁদাকে বিনিয়োগ হিসেবে বিবেচনা করে কর রেয়াত মিলবে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বুধবার এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে। এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম এই প্রজ্ঞাপন সই করেন।

সরকার গত ১৭ আগস্ট সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করে। এই পেনশন স্কিমে চারটি স্কিম আছে। এগুলো হলো প্রবাস স্কিম, প্রগতি স্কিম, সুরক্ষা স্কিম এবং সমতা স্কিম।
এনবিআরের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, একজন পেনশন ভোগকারী প্রতি মাসে যখন পেনশনের টাকা তুলবেন, তা করমুক্ত থাকবে।

এ ছাড়া একজন করদাতা তার আয়ের একটি অংশ সরকার নির্ধারিত কিছু খাতে বিনিয়োগ করলে বছর শেষে কর রেয়াত পাওয়া যায়। যে পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করা হবে, তার ১৫ শতাংশ বা ১০ লাখ টাকার কম যে অর্থ হবে, সেই পরিমাণ অর্থ করছাড় পাওয়া যাবে। কিন্তু নতুন আইনের ষষ্ঠ তফসিলে সরকার নির্ধারিত খাতগুলোর মধ্যে পেনশন স্কিমের চাঁদার কথা উল্লেখ নেই। এখন সেখানে পেনশন স্কিমের চাঁদা অন্তর্ভুক্ত করা হলো।
বিনিয়োগের উল্লেখযোগ্য খাতগুলোর হলো সঞ্চয়পত্র, জীবনবিমার প্রিমিয়াম, প্রভিডেন্ট ফান্ডের চাঁদা, স্বীকৃত ভবিষ্য তহবিলের চাঁদা, সরকারি সিকিউরিটিজ বা মিউচুয়াল ফান্ডে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ, বছরে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা (মাসিক ১০ হাজার) ডিপিএস বিনিয়োগ ও শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ ইত্যাদি।