ঢাকা ০১:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীকে নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার বক্তব্য ভাইরাল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ নভেম্বর ২০২৩ ১০৮ বার পড়া হয়েছে

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিনের বক্তব্য-সংবলিত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। রোববার ছড়িয়ে পড়া এক মিনিটের ভিডিওতে ওই নেতাকে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়। এ নিয়ে জেলায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ছাড়াও সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।
ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে কাজী আলিম উদ্দিন বলেন, ‘আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হচ্ছে আমি নেতা নির্বাচন করতে ভুল করেছিলাম। আমি নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যে লোকটার (মোজাম্মেল হক) পেছনে ৫০ বছর শ্রম দিয়েছি, যাঁকে বারবার পৌরসভার চেয়ারম্যান বানিয়েছি। তাঁর মতো স্বার্থপর লোক, আমার জীবনে সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হলো মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের পেছনে থাকা। এটা হলো আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা। আমি যদি তাঁর পেছনে না থাকতাম, তাহলে হয়তো অনেক ওপরে থাকতে পারতাম। তাঁর সঙ্গে কোনো দিন বেইমানি করিনি। এটাও ভুল করেছি।’

গাজীপুর-৩ (শ্রীপুর-সদর একাংশ) আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন ওরফে সবুজের নাম ধরে ওই নেতা ভিডিওতে বলেন, ‘সবুজ রহমত আলীর সঙ্গে বেইমানি করে এমপি হয়ে গেছে। আমি কোনো সময় বেইমানি করিনি। এটাই হলো আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।’
হঠাৎ কেন এমন মন্তব্য করলেন জানতে চাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিন বলেন, ‘আসলে হঠাৎ করে বলিনি। একটি চ্যানেল আমার সাক্ষাৎকার নিতে এসেছিল। তখনই গল্পের ছলে দুঃখের কথাগুলো বের হয়ে গেছে। তবে যেটা প্রচার হয়েছে, তা একেবারে সত্য কথা বলেছি।’
এ বিষয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে তাঁকে আমি আমার শুভানুধ্যায়ী মনে করি। তাঁর সঙ্গে আমার আদর্শের মিল আছে। মতেরও মিল আছে। তাঁর বিরুদ্ধে আমার কোনো ক্ষোভ নেই। আমি তাঁকে এমন কোনো মিথ্যা আশ্বাস দিইনি। তিনিও রাজনীতি করেছেন, আমিও রাজনীতি করেছি। আমরা একই আদর্শের রাজনীতি করছি। এখনো আমি তাঁকে শুভকামনা জানাই।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীকে নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার বক্তব্য ভাইরাল

আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ নভেম্বর ২০২৩

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিনের বক্তব্য-সংবলিত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। রোববার ছড়িয়ে পড়া এক মিনিটের ভিডিওতে ওই নেতাকে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়। এ নিয়ে জেলায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ছাড়াও সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।
ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে কাজী আলিম উদ্দিন বলেন, ‘আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হচ্ছে আমি নেতা নির্বাচন করতে ভুল করেছিলাম। আমি নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যে লোকটার (মোজাম্মেল হক) পেছনে ৫০ বছর শ্রম দিয়েছি, যাঁকে বারবার পৌরসভার চেয়ারম্যান বানিয়েছি। তাঁর মতো স্বার্থপর লোক, আমার জীবনে সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হলো মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের পেছনে থাকা। এটা হলো আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা। আমি যদি তাঁর পেছনে না থাকতাম, তাহলে হয়তো অনেক ওপরে থাকতে পারতাম। তাঁর সঙ্গে কোনো দিন বেইমানি করিনি। এটাও ভুল করেছি।’

গাজীপুর-৩ (শ্রীপুর-সদর একাংশ) আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন ওরফে সবুজের নাম ধরে ওই নেতা ভিডিওতে বলেন, ‘সবুজ রহমত আলীর সঙ্গে বেইমানি করে এমপি হয়ে গেছে। আমি কোনো সময় বেইমানি করিনি। এটাই হলো আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।’
হঠাৎ কেন এমন মন্তব্য করলেন জানতে চাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিন বলেন, ‘আসলে হঠাৎ করে বলিনি। একটি চ্যানেল আমার সাক্ষাৎকার নিতে এসেছিল। তখনই গল্পের ছলে দুঃখের কথাগুলো বের হয়ে গেছে। তবে যেটা প্রচার হয়েছে, তা একেবারে সত্য কথা বলেছি।’
এ বিষয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে তাঁকে আমি আমার শুভানুধ্যায়ী মনে করি। তাঁর সঙ্গে আমার আদর্শের মিল আছে। মতেরও মিল আছে। তাঁর বিরুদ্ধে আমার কোনো ক্ষোভ নেই। আমি তাঁকে এমন কোনো মিথ্যা আশ্বাস দিইনি। তিনিও রাজনীতি করেছেন, আমিও রাজনীতি করেছি। আমরা একই আদর্শের রাজনীতি করছি। এখনো আমি তাঁকে শুভকামনা জানাই।’