ঢাকা ১১:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৬১ বার পড়া হয়েছে

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান গত সপ্তাহান্তে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

উভয় দেশের কর্মকর্তারা গতকাল রোববার এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। দুই পরাশক্তির মধ্যে উত্তেজনা কমানোর সবশেষ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে সুলিভান ও ওয়াংয়ের মধ্যে এই বৈঠক হলো।

বৈঠকের বিষয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, গত শনিবার ও গতকাল ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টায় বৈঠকটি হয়।
হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দুই পক্ষের মধ্যে যোগাযোগের লাইন খোলা রাখাসহ দায়িত্বের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখার চলমান প্রচেষ্টার অংশ ছিল এই বৈঠক।

গত বছর ইন্দোনেশিয়ার বালিতে অনুষ্ঠিত একটি শীর্ষ সম্মেলনের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং আর কথা বলেননি বা দেখা করেননি। তবে মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, তাঁরা এই দুই নেতার মধ্যে নতুন করে যোগাযোগ স্থাপনে কাজ করছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন, অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেনসহ যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা সম্প্রতি চীন সফর করেন। একটি সম্ভাব্য বাইডেন-সি বৈঠকের প্রস্তুতির জন্য তাঁরা চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।
হোয়াইট হাউস বলেছে, সুলিভান ও ওয়াং যোগাযোগের এই কৌশলগত চ্যানেল বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাঁরা দুই দেশের মধ্যে অধিকতর উচ্চপর্যায়ের যোগাযোগের ব্যবস্থা করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

মাল্টায় অনুষ্ঠিত বৈঠকটি নিয়ে চীন সরকারের পক্ষ থেকেও একটি বিবৃতি এসেছে। বিবৃতিতে অনেকটা মার্কিন সরকারের ভাষ্যের প্রতিধ্বনি রয়েছে।

চীন বলেছে, মাল্টা বৈঠকে দুই পক্ষের মধ্যে অকপট, বাস্তবসম্মত ও গঠনমূলক কৌশলগত আলোচনা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক

আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান গত সপ্তাহান্তে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

উভয় দেশের কর্মকর্তারা গতকাল রোববার এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। দুই পরাশক্তির মধ্যে উত্তেজনা কমানোর সবশেষ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে সুলিভান ও ওয়াংয়ের মধ্যে এই বৈঠক হলো।

বৈঠকের বিষয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, গত শনিবার ও গতকাল ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টায় বৈঠকটি হয়।
হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দুই পক্ষের মধ্যে যোগাযোগের লাইন খোলা রাখাসহ দায়িত্বের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখার চলমান প্রচেষ্টার অংশ ছিল এই বৈঠক।

গত বছর ইন্দোনেশিয়ার বালিতে অনুষ্ঠিত একটি শীর্ষ সম্মেলনের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং আর কথা বলেননি বা দেখা করেননি। তবে মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, তাঁরা এই দুই নেতার মধ্যে নতুন করে যোগাযোগ স্থাপনে কাজ করছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন, অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেনসহ যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা সম্প্রতি চীন সফর করেন। একটি সম্ভাব্য বাইডেন-সি বৈঠকের প্রস্তুতির জন্য তাঁরা চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।
হোয়াইট হাউস বলেছে, সুলিভান ও ওয়াং যোগাযোগের এই কৌশলগত চ্যানেল বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাঁরা দুই দেশের মধ্যে অধিকতর উচ্চপর্যায়ের যোগাযোগের ব্যবস্থা করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

মাল্টায় অনুষ্ঠিত বৈঠকটি নিয়ে চীন সরকারের পক্ষ থেকেও একটি বিবৃতি এসেছে। বিবৃতিতে অনেকটা মার্কিন সরকারের ভাষ্যের প্রতিধ্বনি রয়েছে।

চীন বলেছে, মাল্টা বৈঠকে দুই পক্ষের মধ্যে অকপট, বাস্তবসম্মত ও গঠনমূলক কৌশলগত আলোচনা হয়েছে।