ঢাকা ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

‘বাংলা ভাষাকে বাঁচাতে প্রযুক্তির অপব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:০৯:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে

পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব সত্যজিত কর্মকার বলেছেন, বাংলা ভাষাকে বাঁচাতে আকাশ সংস্কৃতি ও প্রযুক্তির অপব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে। ২১ ফেব্রুয়ারির চেতনাকে ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে।

বুধবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের শহিদ মিনার চত্বরে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা, শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পরিকল্পনা বিভাগ।

অনুষ্ঠানে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের ( ইআরডি) সচিব শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকী, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সচিব) ড. কাউসার আহমেদ, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সচিব) আব্দুল বাকীসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সত্যিজত কর্মকার আরও বলেন, এখানে বসে আপনারা দেখছেন প্রতি ৮ মিনিট পর পর মেট্রোরেল যাচ্ছে এটার বিজ বোপিত হয়েছিল পরিকল্পনা কমিশন থেকেই। দেশের যেকোনো উন্নয়নে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অন্যতম ভূমিকা রয়েছে।

চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে (প্রাইমারি) প্রথম স্থান পেয়েছে নাজিত রহমান, দ্বিতীয় আব্দুর রহসান ও তৃতীয় হয়েছে জাফরিন করিম।
খ গ্রুপে প্রথম দেবস্মিতা সাঙ্গাল, দ্বতীয় লামিয়া ইয়াসমিন এবং তৃতীয় হয়েছে সামিয়া আকতার। গ গ্রুপে প্রথম হুরাইন জান্নাত ফাতেমা, দ্বিতীয় বুশরা তাবাসসুম এবং তৃতীয় স্থান লাভ করেছে সুইটি ইসলাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

‘বাংলা ভাষাকে বাঁচাতে প্রযুক্তির অপব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে’

আপডেট সময় : ০৪:০৯:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব সত্যজিত কর্মকার বলেছেন, বাংলা ভাষাকে বাঁচাতে আকাশ সংস্কৃতি ও প্রযুক্তির অপব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে। ২১ ফেব্রুয়ারির চেতনাকে ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে।

বুধবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের শহিদ মিনার চত্বরে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা, শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পরিকল্পনা বিভাগ।

অনুষ্ঠানে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের ( ইআরডি) সচিব শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকী, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সচিব) ড. কাউসার আহমেদ, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সচিব) আব্দুল বাকীসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সত্যিজত কর্মকার আরও বলেন, এখানে বসে আপনারা দেখছেন প্রতি ৮ মিনিট পর পর মেট্রোরেল যাচ্ছে এটার বিজ বোপিত হয়েছিল পরিকল্পনা কমিশন থেকেই। দেশের যেকোনো উন্নয়নে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অন্যতম ভূমিকা রয়েছে।

চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে (প্রাইমারি) প্রথম স্থান পেয়েছে নাজিত রহমান, দ্বিতীয় আব্দুর রহসান ও তৃতীয় হয়েছে জাফরিন করিম।
খ গ্রুপে প্রথম দেবস্মিতা সাঙ্গাল, দ্বতীয় লামিয়া ইয়াসমিন এবং তৃতীয় হয়েছে সামিয়া আকতার। গ গ্রুপে প্রথম হুরাইন জান্নাত ফাতেমা, দ্বিতীয় বুশরা তাবাসসুম এবং তৃতীয় স্থান লাভ করেছে সুইটি ইসলাম।