ঢাকা ০১:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, সোমবার থেকে বৃষ্টি বাড়তে পারে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০৯:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১২০ বার পড়া হয়েছে

বঙ্গোসাগরে সৃষ্টি হওয়া লঘুচাপটি সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। আবার মৌসুমি বায়ুও বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয়। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এই দুয়ের জেরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পরশু সোমবার থেকে বৃষ্টি বাড়তে পারে। রাজধানীতেও বৃষ্টি বাড়তে পারে। লঘুচাপের কারণে দেশের সব কটি সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

আজ শনিবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উত্তর–পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় থাকা লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে এখন উত্তর–পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় রয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ ভারতের হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত ছড়িয়ে আছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।
আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, সৈয়দপুর, পঞ্চগড় জেলাসহ ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কমতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ আজ প্রথম আলোকে বলেন, এখন মৌসুমি বায়ু চলে যাওয়ার সময়। এই সময়টায় বৃষ্টি কিছুটা বেশি হয়। সোমবার থেকে দেশের প্রায় সর্বত্র বৃষ্টি হতে পারে। তবে বেশি হবে দেশের উত্তরের জনপদ এবং উত্তর–পূর্বের সিলেট অঞ্চলে।
রাজধানীতে গতকাল শুক্রবার বিকেলে বৃষ্টি হয়েছে। এতে তাপমাত্রা খানিকটা কমেছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

বজলুর রশীদ বলেন, আজও রাজধানীতে কিছুটা বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয় কিশোরগঞ্জের নিকলিতে, ৩৬ মিলিমিটার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, সোমবার থেকে বৃষ্টি বাড়তে পারে

আপডেট সময় : ০৭:০৯:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বঙ্গোসাগরে সৃষ্টি হওয়া লঘুচাপটি সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। আবার মৌসুমি বায়ুও বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয়। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এই দুয়ের জেরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পরশু সোমবার থেকে বৃষ্টি বাড়তে পারে। রাজধানীতেও বৃষ্টি বাড়তে পারে। লঘুচাপের কারণে দেশের সব কটি সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

আজ শনিবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উত্তর–পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় থাকা লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে এখন উত্তর–পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় রয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ ভারতের হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত ছড়িয়ে আছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।
আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, সৈয়দপুর, পঞ্চগড় জেলাসহ ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কমতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ আজ প্রথম আলোকে বলেন, এখন মৌসুমি বায়ু চলে যাওয়ার সময়। এই সময়টায় বৃষ্টি কিছুটা বেশি হয়। সোমবার থেকে দেশের প্রায় সর্বত্র বৃষ্টি হতে পারে। তবে বেশি হবে দেশের উত্তরের জনপদ এবং উত্তর–পূর্বের সিলেট অঞ্চলে।
রাজধানীতে গতকাল শুক্রবার বিকেলে বৃষ্টি হয়েছে। এতে তাপমাত্রা খানিকটা কমেছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

বজলুর রশীদ বলেন, আজও রাজধানীতে কিছুটা বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয় কিশোরগঞ্জের নিকলিতে, ৩৬ মিলিমিটার।