ঢাকা ১০:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

নোয়াখালীতে জামায়াতের বৈঠক থেকে ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৩২:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩ ১২৫ বার পড়া হয়েছে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা থেকে জামায়াতের ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ রোববার দুপুরে তাঁদের নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হবে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন একলাশপুর ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন। বেগমগঞ্জ থানা-পুলিশের দাবি, গতকাল রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে অনন্তপুর গ্রামের একটি বাড়িতে জামায়াতের নেতা-কর্মীরা সরকারবিরোধী গোপন বৈঠক করছে।
রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে জামায়াতের ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় জামায়াতের নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে কিছু সাংগঠনিক বই ও প্রচারপত্র জব্দ করা হয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীকে একটি গণতান্ত্রিক সংগঠন দাবি করে জেলা জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, এটি নিষিদ্ধ কোনো সংগঠন নয় যে সভা-সমাবেশ করতে পারবে না। তা ছাড়া ওই বৈঠকটি ছিল একান্তই ইউনিয়ন পর্যায়ের সাংগঠনিক বৈঠক।
পুলিশ সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে ওই বাড়িতে হানা দিয়ে নিরপরাধ জামায়াত নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন তিনি।

আজ সকালে বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেপ্তার জামায়াত নেতা-কর্মীদের আজ দুপুরে নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নোয়াখালীতে জামায়াতের বৈঠক থেকে ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৩:৩২:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা থেকে জামায়াতের ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ রোববার দুপুরে তাঁদের নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হবে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন একলাশপুর ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন। বেগমগঞ্জ থানা-পুলিশের দাবি, গতকাল রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে অনন্তপুর গ্রামের একটি বাড়িতে জামায়াতের নেতা-কর্মীরা সরকারবিরোধী গোপন বৈঠক করছে।
রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে জামায়াতের ৪০ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় জামায়াতের নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে কিছু সাংগঠনিক বই ও প্রচারপত্র জব্দ করা হয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীকে একটি গণতান্ত্রিক সংগঠন দাবি করে জেলা জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, এটি নিষিদ্ধ কোনো সংগঠন নয় যে সভা-সমাবেশ করতে পারবে না। তা ছাড়া ওই বৈঠকটি ছিল একান্তই ইউনিয়ন পর্যায়ের সাংগঠনিক বৈঠক।
পুলিশ সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে ওই বাড়িতে হানা দিয়ে নিরপরাধ জামায়াত নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন তিনি।

আজ সকালে বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেপ্তার জামায়াত নেতা-কর্মীদের আজ দুপুরে নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হবে।