ঢাকা ১১:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

‘নাভালনিকে হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রায় রাখা হয়েছিল’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৭:৩৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫০ বার পড়া হয়েছে

জেলে রহস্যজনক মৃত্যু হয় রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনির। যিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতিদ্বন্দ্বী এবং সমালোচক হিসেবে পরিচিত। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি আকস্মিক মৃত্যু হয় তার।

হার্টে মাত্র একটি ঘুষি মেরে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে বলে দাবি করেছেন এক মানবাধিকারকর্মী। যেটি সাবেক সোভিয়ত ইউনিয়ন (বর্তমান রাশিয়ার) গোয়েন্দা সংস্থা এফএসবি করত। খবর টাইমস অব লন্ডনের।

ভ্লাদিমির ওশেচকিন নামে এই মানবাধিকারকর্মী আর্কটিক কারাগারের একটি সূত্রের বরাতে বলেন, ‘এটি কেজিবির স্পেশাল ফোর্সের একটি পুরোনো পদ্ধতি। শরীরের মাঝখানে, হার্টে এক ঘুষির মাধ্যমে হত্যা করার জন্য তাদের বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এটি তাদের হলমার্ক।’

এই মানবাধিকারকর্মী আরও বলেন, হত্যার আগে নাভালনিকে কঠিন ও হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রায় রাখা হয়েছিল। যেন তিনি দুর্বল হয়ে যান।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি তীব্র ঠাণ্ডার মধ্যে রেখে তার শরীরকে ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। এছাড়া তার শরীরের রক্ত সরবরাহ সর্বনিম্ন পর্যায়ে নিয়ে আসা হয়েছিল। এরমাধ্যমে যে কাউকে হত্যা করা খুবই সহজ। বিশেষ করে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে হত্যা করা যাবে, যদি হত্যাকারী অভিজ্ঞ হয়।’

ইউরোপ

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ডিবির হারুন বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাং সদস্যদের সঙ্গে জড়িত ৩৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছৈ। তাদের গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওয়ারী ও গুলশান বিভাগ। গ্রেফতারদের মধ্যে বেশিরভাগ কিশোর গ্যাং সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রয়েছে। তিনি জানান, গ্রেফতাররা বাড্ডা, ভাটারা, তুরাগ, তিনশ ফিট ও যাত্রাবাড়ীসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় টার্গেট করা ব্যক্তিদের ইভটিজিং বা কোনো সময় ধাক্কা দেওয়ার ছলে উত্ত্যক্ত করত। এরপর তারা ঘেরাও করে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোবাইলফোন এবং নারীদের কাছ থেকে সোনার অলঙ্কার ছিনিয়ে নিত। এ ছাড়া তারা ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও চুরির সঙ্গে জড়িত। এসব গ্যাং সদস্য মাদক কারবারের সঙ্গেও জড়িত। ডিবি হারুন জানান, গ্রেফতার কিশোর গ্যাং সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদে কিছু কথিত বড় ভাইয়ের নাম পাওয়া গেছে। বড় ভাইদেরও গ্রেফতার করা হবে। কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিরুদ্ধে ডিবির প্রতিটি টিম কাজ করছে।

‘নাভালনিকে হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রায় রাখা হয়েছিল’

আপডেট সময় : ০৮:৫৭:৩৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

জেলে রহস্যজনক মৃত্যু হয় রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনির। যিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতিদ্বন্দ্বী এবং সমালোচক হিসেবে পরিচিত। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি আকস্মিক মৃত্যু হয় তার।

হার্টে মাত্র একটি ঘুষি মেরে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে বলে দাবি করেছেন এক মানবাধিকারকর্মী। যেটি সাবেক সোভিয়ত ইউনিয়ন (বর্তমান রাশিয়ার) গোয়েন্দা সংস্থা এফএসবি করত। খবর টাইমস অব লন্ডনের।

ভ্লাদিমির ওশেচকিন নামে এই মানবাধিকারকর্মী আর্কটিক কারাগারের একটি সূত্রের বরাতে বলেন, ‘এটি কেজিবির স্পেশাল ফোর্সের একটি পুরোনো পদ্ধতি। শরীরের মাঝখানে, হার্টে এক ঘুষির মাধ্যমে হত্যা করার জন্য তাদের বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এটি তাদের হলমার্ক।’

এই মানবাধিকারকর্মী আরও বলেন, হত্যার আগে নাভালনিকে কঠিন ও হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রায় রাখা হয়েছিল। যেন তিনি দুর্বল হয়ে যান।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি তীব্র ঠাণ্ডার মধ্যে রেখে তার শরীরকে ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। এছাড়া তার শরীরের রক্ত সরবরাহ সর্বনিম্ন পর্যায়ে নিয়ে আসা হয়েছিল। এরমাধ্যমে যে কাউকে হত্যা করা খুবই সহজ। বিশেষ করে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে হত্যা করা যাবে, যদি হত্যাকারী অভিজ্ঞ হয়।’

ইউরোপ