ঢাকা ০৬:১১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

নরসিংদীতে ফসলি জমিতে পড়ে ছিল ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৮৪ বার পড়া হয়েছে

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় ফসলি জমিতে পড়ে ছিল এক গরু ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ। আজ রোববার সকাল আটটার দিকে উপজেলার আয়ুবপুর ইউনিয়নের নোয়াদিয়া গ্রামের পঞ্চগ্রাম ঈদগাহ-সংলগ্ন ফসলি জমিতে স্থানীয় লোকজন লাশটি দেখে পুলিশকে খবর দেন। স্থানীয় লোকজনের ধারণা, গতকাল শনিবার রাতের কোনো এক সময় তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত গরু ব্যবসায়ীর নাম মো. সাইফুল ইসলাম (৪০)। তিনি আয়ুবপুর ইউনিয়নের শানখোলা গ্রামের আবদুল হেলিম মিয়ার ছেলে। সাইফুলের বাড়ি থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে ফসলি জমিতে লাশটি পাওয়া যায়।
আয়ুবপুর ইউনিয়নের পরিষদের (ইউপি) সদস্য অহিদ উল্লাহ বলেন, আজ রোববার সকালে স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি মাথাবিহীন একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। ঘটনাস্থলের প্রায় ৫০ গজ দূরে তাঁর মাথা পড়ে থাকতে দেখা যায়। কে বা কারা ঠিক কী কারণে তাঁকে এভাবে হত্যা করেছে, তা জানা যায়নি।

নিহত সাইফুলের দুলাভাই মো. মজনু খান বলেন, গরু ব্যবসা, জমিজমাসংক্রান্ত বিষয় ও পাওনা টাকা নিয়ে বেশ কিছু ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্ব চলছিল। তাঁদের মধ্যে কেউ এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারেন বলে ধারণা করছেন।
আজ সকালে শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার বলেন, হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ হত্যাকাণ্ডে কে বা কারা জড়িত, দ্রুত তাদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নরসিংদীতে ফসলি জমিতে পড়ে ছিল ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ

আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় ফসলি জমিতে পড়ে ছিল এক গরু ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ। আজ রোববার সকাল আটটার দিকে উপজেলার আয়ুবপুর ইউনিয়নের নোয়াদিয়া গ্রামের পঞ্চগ্রাম ঈদগাহ-সংলগ্ন ফসলি জমিতে স্থানীয় লোকজন লাশটি দেখে পুলিশকে খবর দেন। স্থানীয় লোকজনের ধারণা, গতকাল শনিবার রাতের কোনো এক সময় তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত গরু ব্যবসায়ীর নাম মো. সাইফুল ইসলাম (৪০)। তিনি আয়ুবপুর ইউনিয়নের শানখোলা গ্রামের আবদুল হেলিম মিয়ার ছেলে। সাইফুলের বাড়ি থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে ফসলি জমিতে লাশটি পাওয়া যায়।
আয়ুবপুর ইউনিয়নের পরিষদের (ইউপি) সদস্য অহিদ উল্লাহ বলেন, আজ রোববার সকালে স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি মাথাবিহীন একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। ঘটনাস্থলের প্রায় ৫০ গজ দূরে তাঁর মাথা পড়ে থাকতে দেখা যায়। কে বা কারা ঠিক কী কারণে তাঁকে এভাবে হত্যা করেছে, তা জানা যায়নি।

নিহত সাইফুলের দুলাভাই মো. মজনু খান বলেন, গরু ব্যবসা, জমিজমাসংক্রান্ত বিষয় ও পাওনা টাকা নিয়ে বেশ কিছু ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্ব চলছিল। তাঁদের মধ্যে কেউ এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারেন বলে ধারণা করছেন।
আজ সকালে শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার বলেন, হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ হত্যাকাণ্ডে কে বা কারা জড়িত, দ্রুত তাদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।