ঢাকা ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে পোশাককর্মীর মৃত্যু, গাড়ি ভাংচুর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৮:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২৪ ১৪ বার পড়া হয়েছে

গাজীপুরের টঙ্গীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আতিকুর রহমান (৪০) নামে এক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর গাজীপুরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ওই কারখানাটির শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা মহাসড়কে চলাচলরত বেশ কয়েকটি গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করেন।দুর্ঘটনার পর পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর মর্গে পাঠিয়েছেন।

নিহত আতিকুর গাইবান্ধা সদর থানার বাহাদুরপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। আতিকুর শারিরীক প্রতিবন্ধী ছিলেন। তিনি টঙ্গীর গাজীপুরা এলাকায় পরিবারের সঙ্গে বসবাস করে স্থানীয় স্টার্ন টেক্স লিমিটেড পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। ঘটনার পর পুলিশ গাজীপুরের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে ঘাতক ট্রাকটিকে জব্দ করেছে।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কারখানায় কাজ শেষে গাজীপুরার বাসায় ফিরছিলেন আতিকুর। এ সময় কারখানার সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পারাপার হতে গেলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গাজীপুরগামী দ্রুতগতির একটি ট্রাক তাকে চাপা চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তার দেহ ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
সহকর্মীদের কাছে তার মৃত্যুর খবরটি ছড়িয়ে পড়লে কারখানার কয়েকশ শ্রমিক ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এ সময় মহাসড়কের ঢাকাগামী লেনে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বেশ কয়েকটি গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করেন।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

গাজীপুর

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে পোশাককর্মীর মৃত্যু, গাড়ি ভাংচুর

আপডেট সময় : ১০:৫৮:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২৪

গাজীপুরের টঙ্গীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আতিকুর রহমান (৪০) নামে এক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর গাজীপুরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ওই কারখানাটির শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা মহাসড়কে চলাচলরত বেশ কয়েকটি গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করেন।দুর্ঘটনার পর পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর মর্গে পাঠিয়েছেন।

নিহত আতিকুর গাইবান্ধা সদর থানার বাহাদুরপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। আতিকুর শারিরীক প্রতিবন্ধী ছিলেন। তিনি টঙ্গীর গাজীপুরা এলাকায় পরিবারের সঙ্গে বসবাস করে স্থানীয় স্টার্ন টেক্স লিমিটেড পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। ঘটনার পর পুলিশ গাজীপুরের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে ঘাতক ট্রাকটিকে জব্দ করেছে।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কারখানায় কাজ শেষে গাজীপুরার বাসায় ফিরছিলেন আতিকুর। এ সময় কারখানার সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পারাপার হতে গেলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গাজীপুরগামী দ্রুতগতির একটি ট্রাক তাকে চাপা চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তার দেহ ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
সহকর্মীদের কাছে তার মৃত্যুর খবরটি ছড়িয়ে পড়লে কারখানার কয়েকশ শ্রমিক ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এ সময় মহাসড়কের ঢাকাগামী লেনে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বেশ কয়েকটি গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করেন।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

গাজীপুর