ঢাকা ১০:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

গাজার স্কুলে ইসরায়েলের গোলা হামলায় প্রাণ গেল ২০ জনের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১৯:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৪ নভেম্বর ২০২৩ ১৫৭ বার পড়া হয়েছে

গাজার উত্তরাঞ্চলীয় একটি বিদ্যালয়ে ইসরায়েলের হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। বিদ্যালয়টিকে আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল।
শনিবার ভোরে গাজায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস–নিয়ন্ত্রিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এসব তথ্য জানিয়েছে।
মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গাজার উত্তরাঞ্চলে আল সাফতাউয়ি এলাকায় বাস্তুচ্যুতদের জন্য অস্থায়ী আশ্রয়শিবির হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল—এমন একটি বিদ্যালয়কে সরাসরি হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। এরপর হামলায় শহীদ হওয়া ২০ জন এবং আহত হওয়া কয়েকজনকে গাজা সিটির আল শিফা হাসপাতালে আনা হয়েছে।’
বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘বিদ্যালয়টিকে লক্ষ্য করে ট্যাংক থেকে সরাসরি কয়েকটি গোলা ছোড়া হয়েছে।’

৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় হামাস। জবাবে ওই দিন থেকেই গাজাকে অবরুদ্ধ করে নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। গাজায় স্থল অভিযানও চালাচ্ছে দেশটি।
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় এ পর্যন্ত ৯ হাজার ২২৭ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।
ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসের ১ হাজার ৪০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দুই শতাধিক ব্যক্তিকে ইসরায়েল থেকে ধরে গাজায় নিয়ে জিম্মি করে রেখেছে হামাস।

এদিকে গাজায় চলমান ইসরায়েলি হামলার প্রেক্ষাপটে আবারও সাময়িক যুদ্ধবিরতির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেছেন, এ ধরনের কোনো উদ্যোগে তাঁর সায় নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

গাজার স্কুলে ইসরায়েলের গোলা হামলায় প্রাণ গেল ২০ জনের

আপডেট সময় : ১১:১৯:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৪ নভেম্বর ২০২৩

গাজার উত্তরাঞ্চলীয় একটি বিদ্যালয়ে ইসরায়েলের হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। বিদ্যালয়টিকে আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল।
শনিবার ভোরে গাজায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস–নিয়ন্ত্রিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এসব তথ্য জানিয়েছে।
মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গাজার উত্তরাঞ্চলে আল সাফতাউয়ি এলাকায় বাস্তুচ্যুতদের জন্য অস্থায়ী আশ্রয়শিবির হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল—এমন একটি বিদ্যালয়কে সরাসরি হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। এরপর হামলায় শহীদ হওয়া ২০ জন এবং আহত হওয়া কয়েকজনকে গাজা সিটির আল শিফা হাসপাতালে আনা হয়েছে।’
বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘বিদ্যালয়টিকে লক্ষ্য করে ট্যাংক থেকে সরাসরি কয়েকটি গোলা ছোড়া হয়েছে।’

৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় হামাস। জবাবে ওই দিন থেকেই গাজাকে অবরুদ্ধ করে নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। গাজায় স্থল অভিযানও চালাচ্ছে দেশটি।
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় এ পর্যন্ত ৯ হাজার ২২৭ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।
ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসের ১ হাজার ৪০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দুই শতাধিক ব্যক্তিকে ইসরায়েল থেকে ধরে গাজায় নিয়ে জিম্মি করে রেখেছে হামাস।

এদিকে গাজায় চলমান ইসরায়েলি হামলার প্রেক্ষাপটে আবারও সাময়িক যুদ্ধবিরতির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেছেন, এ ধরনের কোনো উদ্যোগে তাঁর সায় নেই।