ঢাকা ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

কেরানীগঞ্জে ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে নিহত পথচারীর পরিচয় পাওয়া গেছে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১১:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩ ১৫৭ বার পড়া হয়েছে

ঢাকার কেরানীগঞ্জে সাহেব আলী সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে নিহত পথচারীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁর নাম মো. রনি (৩২)। তিনি চাঁদপুরের কচুয়া থানার শাহপাড়া গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে। রনি দুই ছেলে–মেয়ের বাবা। আজ বুধবার দুপুরে স্বজন ও পুলিশ সূত্রে তাঁর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

রনির ভগ্নিপতি ওসমান গণি বলেন, রনি রাজধানীর মিরপুর থানার শাহ আলী ৪৭/১৬ গোড়ান ছাদবাড়ি এলাকায় এইচআইএন এন্টারপ্রাইজ নামের গ্যাস রক্ষণাবেক্ষণ ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন। রনি ঢাকার কুড়িল বিশ্বরোড এলাকার একটি মেসে থাকতেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে তিনি কেরানীগঞ্জের জিনজিরা বাদামগাছতলা এলাকায় একটি সিএনজি স্টেশনে কাজে যান। রাত ১১টার দিকে পুলিশ মুঠোফোনে কল করে জানায়, রনি বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে মারা গেছেন।
ফিলিং স্টেশনের পাশের আবদুল মালেকের গাড়ির গ্যারেজের কর্মচারী নাসির মিয়া বলেন, ‘সেদিন সন্ধ্যার দিকে আমরা গ্যারেজে গাড়ির কাজ করছিলাম। তখন বিস্ফোরণের বিকট শব্দে গ্যারেজ থেকে বের হয়ে যাই। এরপর চারদিকে ধোঁয়া দেখতে পাই। তখন মানুষ ছোটাছুটি করছিলেন। পরে বিস্ফোরণে দগ্ধ ব্যক্তিদের স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন।’

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন অর রশিদ বলেন, সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।
গতকাল সন্ধ্যায় কেরানীগঞ্জের জিনজিরা বাদামতলা এলাকায় সাহেব আলী সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে এক পথচারী মারা যান। প্রথমে তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। আজ নিশ্চিত হওয়া গেছে নিহত ওই পথচারী ছিলেন মো. রনি। এ ঘটনায় শহিদুল ইসলাম (৩২) ও মো. আসিফ (২৭) নামের ওই ফিলিং স্টেশনের দুজন কর্মী দগ্ধ হয়েছেন। তাঁদের ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কেরানীগঞ্জে ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে নিহত পথচারীর পরিচয় পাওয়া গেছে

আপডেট সময় : ০৫:১১:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩

ঢাকার কেরানীগঞ্জে সাহেব আলী সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে নিহত পথচারীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁর নাম মো. রনি (৩২)। তিনি চাঁদপুরের কচুয়া থানার শাহপাড়া গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে। রনি দুই ছেলে–মেয়ের বাবা। আজ বুধবার দুপুরে স্বজন ও পুলিশ সূত্রে তাঁর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

রনির ভগ্নিপতি ওসমান গণি বলেন, রনি রাজধানীর মিরপুর থানার শাহ আলী ৪৭/১৬ গোড়ান ছাদবাড়ি এলাকায় এইচআইএন এন্টারপ্রাইজ নামের গ্যাস রক্ষণাবেক্ষণ ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন। রনি ঢাকার কুড়িল বিশ্বরোড এলাকার একটি মেসে থাকতেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে তিনি কেরানীগঞ্জের জিনজিরা বাদামগাছতলা এলাকায় একটি সিএনজি স্টেশনে কাজে যান। রাত ১১টার দিকে পুলিশ মুঠোফোনে কল করে জানায়, রনি বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে মারা গেছেন।
ফিলিং স্টেশনের পাশের আবদুল মালেকের গাড়ির গ্যারেজের কর্মচারী নাসির মিয়া বলেন, ‘সেদিন সন্ধ্যার দিকে আমরা গ্যারেজে গাড়ির কাজ করছিলাম। তখন বিস্ফোরণের বিকট শব্দে গ্যারেজ থেকে বের হয়ে যাই। এরপর চারদিকে ধোঁয়া দেখতে পাই। তখন মানুষ ছোটাছুটি করছিলেন। পরে বিস্ফোরণে দগ্ধ ব্যক্তিদের স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন।’

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন অর রশিদ বলেন, সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।
গতকাল সন্ধ্যায় কেরানীগঞ্জের জিনজিরা বাদামতলা এলাকায় সাহেব আলী সিএনজি ফিলিং স্টেশনে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে এক পথচারী মারা যান। প্রথমে তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। আজ নিশ্চিত হওয়া গেছে নিহত ওই পথচারী ছিলেন মো. রনি। এ ঘটনায় শহিদুল ইসলাম (৩২) ও মো. আসিফ (২৭) নামের ওই ফিলিং স্টেশনের দুজন কর্মী দগ্ধ হয়েছেন। তাঁদের ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।