ঢাকা ০১:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

কক্সবাজার টেকনাফের ইসলামাবাদ ও উখিয়ার পালংখালী বাজার এলাকায় পরিচালিত পৃথক দুটি অভিযানে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ ও ৮০ ক্যান বিয়ার উদ্ধারসহ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১০:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কক্সবাজার টেকনাফের ইসলামাবাদ ও উখিয়ার পালংখালী বাজার এলাকায় পরিচালিত পৃথক দুটি অভিযানে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ ও ৮০ ক্যান বিয়ার উদ্ধারসহ দুইজন মাদক কারবারী এবং একজন গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত আসামী র‌্যাব-১৫ কর্তৃক গ্রেফতার

১। র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর। দেশব্যাপী মাদকের বিস্তাররোধসহ সমাজে বিরাজমান নানাবিধ অপরাধ দমন ও অপরাধের সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১৫ আন্তরিকতার সহিত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় কতিপয় মাদক কারবারী কক্সবাজারের টেকনাফ থানাধীন ইসলামাবাদ এলাকাস্থ জনৈক ইউসুফ এর বাড়ীর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা (টমটম) এর মধ্যে মাদকদ্রব্যসহ অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অবগত হয়ে অদ্য ০৮ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ০০.১৫ র‌্যাব-১৫, সিপিসি-১ টেকনাফ ক্যাম্পের আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে দুইজন ব্যক্তি টমটম থেকে নেমে পালায়নের চেষ্টাকালে তাদেরকে গ্রেফতারসহ উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে গ্রেফতারকৃতদের হেফাজত হতে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ (প্রতিটির গায়ে ইংরেজীতে GRAND ROYAL Sinnature BLENDED WHISKEY 40℅ VOL লেখা আছে) ও ৮০ ক্যান বিয়ার (প্রতিটির গায়ে ইংরেজীতে ANDAMAN GOLD alc LAGER BEER 5% ABV লেখা আছে) উদ্ধার এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত অটোরিক্সাটি জব্দ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ টেকনাফ সীমান্তবর্তী এলাকা হতে বিয়ার ও বিদেশী মদসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রয়ের সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে। প্রথমত, তারা অবৈধভাবে বিভিন্ন মাদক পার্শ্ববর্তী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে নিজেদের হেফাজতে মজুদ করতো। পরবর্তীতে অভিনব কায়দায় অবলম্বন এবং পরিবহন কাজে টমটম ব্যবহার করে স্থানীয় এলাকাসহ কক্সবাজার ও দেশের বিভিন্ন স্থানে এই মাদক বিক্রয় করতো বলে জানায়।

৩। গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীদের বিস্তারিত পরিচয় :

ক) মোহাম্মদ ইসমাইল প্রকাশ ইউসুফ (৫১), পিতা-মৃত আব্দুল মোনাফ, মাতা-জোহরা খাতুন, স্ত্রী-হোমাইরা আক্তার, সাং-পশ্চিম ইসলামাবাদ, ৪নং ওয়ার্ড, টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ, কক্সবাজার।

খ) সফিউল্লাহ (৩০), পিতা-মৃত আবুল কাশেম, মাতা-নুর জাহান, সাং-ডেইল পাড়া, ৫নং ওয়ার্ড, টেকনাফ, কক্সবাজার।

৪। অপরদিকে গ্রেফতারী পরোয়ানামূলে গত ০৭ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ২০.১০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-১৫, সিপিসি-২ হোয়াইক্যাং ক্যাম্পের আভিযানিক দল কক্সবাজারের উখিয়া থানাধীন পালংখালী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মাদক মামলায় গ্রেফতারী পরোয়নাভুক্ত আসামী মোহাম্মদ রফিক (২৮), পিতা-মোঃ রশিদ, সাং-কুতুপালং রেজিস্টার্ড ক্যাম্প, উখিয়া, কক্সবাজারকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

৫। উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় এজাহার দাখিল এবং গ্রেফতারী পরোয়নাভুক্ত আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

কক্সবাজার টেকনাফের ইসলামাবাদ ও উখিয়ার পালংখালী বাজার এলাকায় পরিচালিত পৃথক দুটি অভিযানে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ ও ৮০ ক্যান বিয়ার উদ্ধারসহ

আপডেট সময় : ০৯:১০:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কক্সবাজার টেকনাফের ইসলামাবাদ ও উখিয়ার পালংখালী বাজার এলাকায় পরিচালিত পৃথক দুটি অভিযানে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ ও ৮০ ক্যান বিয়ার উদ্ধারসহ দুইজন মাদক কারবারী এবং একজন গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত আসামী র‌্যাব-১৫ কর্তৃক গ্রেফতার

১। র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর। দেশব্যাপী মাদকের বিস্তাররোধসহ সমাজে বিরাজমান নানাবিধ অপরাধ দমন ও অপরাধের সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১৫ আন্তরিকতার সহিত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় কতিপয় মাদক কারবারী কক্সবাজারের টেকনাফ থানাধীন ইসলামাবাদ এলাকাস্থ জনৈক ইউসুফ এর বাড়ীর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা (টমটম) এর মধ্যে মাদকদ্রব্যসহ অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অবগত হয়ে অদ্য ০৮ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ০০.১৫ র‌্যাব-১৫, সিপিসি-১ টেকনাফ ক্যাম্পের আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে দুইজন ব্যক্তি টমটম থেকে নেমে পালায়নের চেষ্টাকালে তাদেরকে গ্রেফতারসহ উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে গ্রেফতারকৃতদের হেফাজত হতে ৬৩ বোতল বিদেশী মদ (প্রতিটির গায়ে ইংরেজীতে GRAND ROYAL Sinnature BLENDED WHISKEY 40℅ VOL লেখা আছে) ও ৮০ ক্যান বিয়ার (প্রতিটির গায়ে ইংরেজীতে ANDAMAN GOLD alc LAGER BEER 5% ABV লেখা আছে) উদ্ধার এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত অটোরিক্সাটি জব্দ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ টেকনাফ সীমান্তবর্তী এলাকা হতে বিয়ার ও বিদেশী মদসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রয়ের সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে। প্রথমত, তারা অবৈধভাবে বিভিন্ন মাদক পার্শ্ববর্তী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে নিজেদের হেফাজতে মজুদ করতো। পরবর্তীতে অভিনব কায়দায় অবলম্বন এবং পরিবহন কাজে টমটম ব্যবহার করে স্থানীয় এলাকাসহ কক্সবাজার ও দেশের বিভিন্ন স্থানে এই মাদক বিক্রয় করতো বলে জানায়।

৩। গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীদের বিস্তারিত পরিচয় :

ক) মোহাম্মদ ইসমাইল প্রকাশ ইউসুফ (৫১), পিতা-মৃত আব্দুল মোনাফ, মাতা-জোহরা খাতুন, স্ত্রী-হোমাইরা আক্তার, সাং-পশ্চিম ইসলামাবাদ, ৪নং ওয়ার্ড, টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ, কক্সবাজার।

খ) সফিউল্লাহ (৩০), পিতা-মৃত আবুল কাশেম, মাতা-নুর জাহান, সাং-ডেইল পাড়া, ৫নং ওয়ার্ড, টেকনাফ, কক্সবাজার।

৪। অপরদিকে গ্রেফতারী পরোয়ানামূলে গত ০৭ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ২০.১০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-১৫, সিপিসি-২ হোয়াইক্যাং ক্যাম্পের আভিযানিক দল কক্সবাজারের উখিয়া থানাধীন পালংখালী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মাদক মামলায় গ্রেফতারী পরোয়নাভুক্ত আসামী মোহাম্মদ রফিক (২৮), পিতা-মোঃ রশিদ, সাং-কুতুপালং রেজিস্টার্ড ক্যাম্প, উখিয়া, কক্সবাজারকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

৫। উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় এজাহার দাখিল এবং গ্রেফতারী পরোয়নাভুক্ত আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।