ঢাকা ০৮:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম... সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

আজও কি বৃষ্টি হবে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:২৪:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অক্টোবর ২০২৩ ৩০ বার পড়া হয়েছে

‘কোন ক্ষ্যাপা শ্রাবণ ছুটে এল আশ্বিনেরই আঙিনায়’—বাইরে তাকালেই এখন মনে পড়ে রবি ঠাকুরের গানটি। মাঝ-আশ্বিনে এসে কয়েক দিন ধরে বৃষ্টি ঝরছে তো ঝরছেই। বৃষ্টিতে রাস্তাঘাটের জলাবদ্ধতায় রাজধানীবাসী নাকাল। বৃষ্টি আর জলাবদ্ধতার দুর্ভোগে পড়েছে দেশের উত্তরাঞ্চলের রংপুর, রাজশাহী। বৃষ্টির কবল থেকে বাদ নেই ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগও।

আজ শনিবার সকাল থেকে ঢাকার আকাশে রোদ উঁকিঝুঁকি দিচ্ছে। রোদের এই আনাগোনা দেখে মনে হচ্ছে, বৃষ্টির বিদায়ের সময় এসেছে। এমন ভাবনায় স্বস্তিও মিলছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া খবরও কিছুটা স্বস্তির। অধিদপ্তর বলছে, আজ শনিবার সারা দেশে বৃষ্টি কমে আসতে পারে। তবে ঢাকা, সিলেট, ময়মনসিংহের বেশির ভাগ এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। কাল রোববার থেকে বৃষ্টি আরও কমে স্বাভাবিক আবহাওয়া ফিরতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, অক্টোবরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত বর্ষাকাল। কারণ, এ সময়ে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকে। অধিদপ্তর বলছে, আগামী সপ্তাহ থেকে বর্ষা মৌসুম বিদায় নিতে শুরু করবে। যাওয়ার আগে কিছুটা বৃষ্টি ঝরালেও তা খুব বেশি তীব্র হওয়ার আশঙ্কা নেই।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, গতকাল সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জের নিকলীতে দেশের সর্বোচ্চ ৪৭৬ মিলিমিটার বৃষ্টি ঝরেছে, যা এ বছরে দেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির রেকর্ড।
এ ছাড়া গতকাল ময়মনসিংহে ৩৪০ ও নেত্রকোনায় ৩১১ মিলিমিটার বৃষ্টি ঝরেছে। আর রাজধানীতে হয়েছে ৮০ মিলিমিটার। এর বাইরে সিলেট বিভাগের সব জেলায় ১০০ মিলিমিটারের কাছাকাছি বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, এর আগে সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয় নোয়াখালীর হাতিয়ায়, ২০১৬ সালের ১১ অক্টোবর সেখানে ৪০৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। এর আগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টির রেকর্ড করা হয়েছিল ময়মনসিংহে, ১৯৭১ সালের ২ অক্টোবর ৩৮১ মিলিমিটার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ডিবির হারুন বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাং সদস্যদের সঙ্গে জড়িত ৩৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছৈ। তাদের গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওয়ারী ও গুলশান বিভাগ। গ্রেফতারদের মধ্যে বেশিরভাগ কিশোর গ্যাং সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রয়েছে। তিনি জানান, গ্রেফতাররা বাড্ডা, ভাটারা, তুরাগ, তিনশ ফিট ও যাত্রাবাড়ীসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় টার্গেট করা ব্যক্তিদের ইভটিজিং বা কোনো সময় ধাক্কা দেওয়ার ছলে উত্ত্যক্ত করত। এরপর তারা ঘেরাও করে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোবাইলফোন এবং নারীদের কাছ থেকে সোনার অলঙ্কার ছিনিয়ে নিত। এ ছাড়া তারা ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও চুরির সঙ্গে জড়িত। এসব গ্যাং সদস্য মাদক কারবারের সঙ্গেও জড়িত। ডিবি হারুন জানান, গ্রেফতার কিশোর গ্যাং সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদে কিছু কথিত বড় ভাইয়ের নাম পাওয়া গেছে। বড় ভাইদেরও গ্রেফতার করা হবে। কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিরুদ্ধে ডিবির প্রতিটি টিম কাজ করছে।

আজও কি বৃষ্টি হবে

আপডেট সময় : ০১:২৪:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অক্টোবর ২০২৩

‘কোন ক্ষ্যাপা শ্রাবণ ছুটে এল আশ্বিনেরই আঙিনায়’—বাইরে তাকালেই এখন মনে পড়ে রবি ঠাকুরের গানটি। মাঝ-আশ্বিনে এসে কয়েক দিন ধরে বৃষ্টি ঝরছে তো ঝরছেই। বৃষ্টিতে রাস্তাঘাটের জলাবদ্ধতায় রাজধানীবাসী নাকাল। বৃষ্টি আর জলাবদ্ধতার দুর্ভোগে পড়েছে দেশের উত্তরাঞ্চলের রংপুর, রাজশাহী। বৃষ্টির কবল থেকে বাদ নেই ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগও।

আজ শনিবার সকাল থেকে ঢাকার আকাশে রোদ উঁকিঝুঁকি দিচ্ছে। রোদের এই আনাগোনা দেখে মনে হচ্ছে, বৃষ্টির বিদায়ের সময় এসেছে। এমন ভাবনায় স্বস্তিও মিলছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া খবরও কিছুটা স্বস্তির। অধিদপ্তর বলছে, আজ শনিবার সারা দেশে বৃষ্টি কমে আসতে পারে। তবে ঢাকা, সিলেট, ময়মনসিংহের বেশির ভাগ এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। কাল রোববার থেকে বৃষ্টি আরও কমে স্বাভাবিক আবহাওয়া ফিরতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, অক্টোবরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত বর্ষাকাল। কারণ, এ সময়ে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকে। অধিদপ্তর বলছে, আগামী সপ্তাহ থেকে বর্ষা মৌসুম বিদায় নিতে শুরু করবে। যাওয়ার আগে কিছুটা বৃষ্টি ঝরালেও তা খুব বেশি তীব্র হওয়ার আশঙ্কা নেই।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, গতকাল সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জের নিকলীতে দেশের সর্বোচ্চ ৪৭৬ মিলিমিটার বৃষ্টি ঝরেছে, যা এ বছরে দেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির রেকর্ড।
এ ছাড়া গতকাল ময়মনসিংহে ৩৪০ ও নেত্রকোনায় ৩১১ মিলিমিটার বৃষ্টি ঝরেছে। আর রাজধানীতে হয়েছে ৮০ মিলিমিটার। এর বাইরে সিলেট বিভাগের সব জেলায় ১০০ মিলিমিটারের কাছাকাছি বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, এর আগে সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয় নোয়াখালীর হাতিয়ায়, ২০১৬ সালের ১১ অক্টোবর সেখানে ৪০৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। এর আগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টির রেকর্ড করা হয়েছিল ময়মনসিংহে, ১৯৭১ সালের ২ অক্টোবর ৩৮১ মিলিমিটার।