সন্তান না হওয়ায় বিড়াল পোষেন স্বামী, ফাঁ'স দিলেন স্ত্রী'

প্রে'ম থেকে বিয়ে, তারপর সংসার। কিন্তু তিন বছরেও সন্তান না হওয়ায় একটি বিড়াল পুষতে শুরু করেন স্বামী। আর বিড়ালকেই সন্তানের মতো ফিডারে দুধ খাওয়ান তিনি। যা নিয়ে নিয়মিত ঝগড়া হয় স্ত্রী'র সঙ্গে। শুক্রবার বিকেলে এরই জেরে কথা কা'টাকাটির একপর্যায়ে ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করেন স্ত্রী'।
ঘটনাটি ঘটেছে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজে'লার দাউদখালী ইউপির দক্ষিণ গীলাবাদ গ্রামে। মৃ'ত শারমিন বেগম একই গ্রামের ভ্যানচালক ছিদ্দিক হাওলাদারের স্ত্রী'।

স্বজনরা জানান, চট্টগ্রামে থাকতেন ছিদ্দিক। সেখানেই শারমিনের সঙ্গে তার প্রে'ম হয়। একপর্যায়ে সংসার বাঁধেন তারা। তবে তিন বছরেও সন্তানের মুখ দেখেননি ছিদ্দিক। তাই একটি বিড়াল পোষেন তিনি। শুক্রবার বিকেলে বিড়ালকে ফিডারে দুধ খাওয়ানো নিয়ে স্বামী-স্ত্রী'র কথা কা'টাকাটি হয়। পরে সন্ধ্যায় নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করেন শারমিন। তিনি ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজে'লার আমুয়া গ্রামের আবুল কালামের মে'য়ে।

মঠবাড়িয়া থা'নার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান বলেন, ম'রদেহ উ'দ্ধার করে থা'নায় আনা হয়েছে। শনিবার সকালে সদর হাসপাতাল ম'র্গে পাঠানো হবে। ময়নাত'দন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃ'ত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

Back to top button