বেশিদিন বেঁচে থাকার র'হস্য ফাঁ'স করলেন বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তি

জন্মিলে ম'রিতে হইবে। এটাই চিরন্তন সত্য। তবে কিছু মানুষ আছেন যারা মৃ'ত্যুকে জয় করেননি বটে, কিন্তু নিজের বয়স দিয়ে অন্যকে চ'মকে দেওয়ার সাধ্য রাখেন। তেমনই এক ব্যক্তি গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে। যার বর্তমান বয়স ১১২ বছর ৩৪৪ দিন। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক পুরুষ মানুষ তিনিই।

যুবক বয়সে পেশায় একজন কৃষক ছিলেন তিনি। নিজের দীর্ঘায়ুর র'হস্য হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, ‘কখনও রাগ করা চলবে না, আর সর্বদা মুখে হাসি রাখতে হবে।’ ১৯০৭ সালে উত্তর জা'পানের নিইগাতা শহরে জন্মগ্রহণ করেন গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে। তিনি গ্রিনিস ওয়ার্ল্ডের তরফ থেকে সার্টিফিকেটও পেয়েছেন।

জা'পানের এই বয়স্ক ব্যক্তি জানিয়েছেন, দাঁত না থাকলেও পুডিং এবং ক্রিম পাফ খেতে পছন্দ করেন তিনি। কারণ এই ধরণের খাবারগু'লি দাঁত দিয়ে চাবাতে হয় না। এর আগে যে ব্যক্তি বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ছিলেন, তার নাম মাসাজো নোনাকা। তিনিও জা'পানেরই নাগরিক ছিলেন। ২০১৯ সালে ১১৩ বছরে মৃ'ত্যু হয় তার।

গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে স'ম্পর্কে বলতে গিয়ে তার বড় ছেলের পুত্রবধূ জানিয়েছেন, ওয়াতানাবেকে তিনি কখনও রাগতে দেখেননি। পাশাপাশি তিনি যথেষ্ট যত্নশীলও।

অন্যদিকে ওয়াতানাবে নিজের স'ম্পর্কে বলেছেন, ‘আমি মনে করি, এক ছাদের নীচে একটি বড় পরিবারের সাথে বসবাস করছি, এখানে নাতি-নাতনিরা আমা'র মুখের হাসি বাঁচিয়ে রেখছে।’ তার এই কথা থেকেই পরিষ্কার তিনি তার নাতি-নাতনিদের কতটা ভালোবাসেন।